Bangla Choti Golpo | বাংলা চটি গল্প

Bangla choti golpo পড়ার আসক্তি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তরুণদের মাঝে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে বাংলা চটি গল্প। এই আদিরসের গল্প পড়া কী ভাল নয়? কী হয় চটি গল্প পড়লে ? চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

চটি গল্প বলতে কী বোঝায়?

চটি গল্প বলতে সাধারণত আদিরসের গল্প বা ১৮+ গল্পকেই বুঝায়। যেখানে আপনি অনেকটা বাজে বাজে গল্প পাবেন। যেখানে মায়ের সঙ্গে ছেলে, বোনের সঙ্গে ভাই, বাবার সঙ্গে মেয়ের যৌন মিলন এরকম উল্টা পাল্টা সব কাহিনী পাবেন।

মূল কথা হলো ওখানে আপনি সেক্স রিলেটেড গল্প পাবেন। যেগুলো পড়ার ফলে আপনার মাথায় খুবই খারাপ একটা প্রভাব পড়বে।

যা আপনার শরীর ও মনকে উত্তেজিত করে কাম উদ্দীপনা সৃষ্টি করে। যদিও জন্মগত ভাবেই এই কাম উদ্দীপনা মানব শরীরের সঙ্গে  জড়িত। চটি গল্প সেই অনুভূতিকে জাগানোর কাজ করে।

আপনাকে যদি জিজ্ঞেস করা হয় বাংলা চটি গল্প কাকে বলে?

তাহলে আপনি চোখ বন্ধ করে কোনও সংকোচ ছাড়াই বলতে পারবেন,- বাংলা চটি গল্প হল বাংলায় লেখা আদিরসাত্মক গল্প বা ১৮+ গল্প। যা শরীর ও মনের ভেতর কাম উদ্দীপনার জন্ম দেয়।

কিন্তু বিকৃত আদিরসাত্মক চটি গল্প যা মানুষের মনে বিকৃত কাম অনুভূতির জন্ম দেয়, এমন লেখাগুলো কখনই পড়া উচিত নয়। মাতা পুত্র, পিতা কন্যা, ভাই বোন এইসব পবিত্র সম্পর্ককে কলুষিত করা গল্প লেখা ও পড়া দুই-ই হারাম। পাপ। অপরাধ। যারা এমন গল্প লেখে বা পড়ে তারা ঈশ্বর বা আল্লার কাছে দোষী।

গল্প কি পড়া উচিৎ নয় - Bangla Choti Golpo | বাংলা চটি গল্পচটি গল্প কি পড়া উচিত নয়?

যে বা যারা চটি গল্প পড়েন তারা নিশ্চয় একবার হলেও মনে মনে চিন্তা করেছেন যে এইসব গল্প পড়া কি উচিত না অনুচিত? একবার হলেও মনের কোনায় এই প্রশ্নের উদয় হয়েছে এবং পাপ বোধের জন্ম হয়েছে।

মুসলিম নিয়ম অনুসারে, যিনা করা হারাম কাজ।আর সেই যিনার কথা বা বর্ননা করা ও শুনাও হারাম।আর অধিকাংশ চটি গল্প গুলি মিথ্যা ও অশ্লীলতায় ভরপুর। যা ইসলাম ধর্ম সমর্থন করে না। আর নিজের মা বোন ভাবি চাচি মামি খালা তাদের সাথে যিনার গল্প থাকে চটি গল্পতে।আপনি ভেবে দেখুন এই গল্প গুলি কত নিকৃষ্ট। তাই কোনো মুসলমান ব্যাক্তির চটি গল্প পড়া বৈধ নয়। এবং উচিত ও নয়।

আপনি যদি সনাতন বা হিন্দু ধর্মাবলম্বী হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার জেনে রাখা ভাল যে এই সব কুরুচি সম্পূর্ণ গল্প লেখা ও পড়া আপনাদের ধর্ম মতেও নিষিদ্ধ। আপনাদের অনেক ধর্ম গুরু এই বাপারে সচেতন ও সতর্ক হতে বলেছেন। এই ধরণের কুরুচি সম্পূর্ণ গল্প পড়ার ফলে মানুষের মন থেকে পারিবারিক ও সামাজিক সম্পর্ক এর প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান কমে যায়। মনে বিকৃত যৌন কামনার সৃষ্টি হয়। এর ফলে নিজের মা, বোন, ভাবি, চাচি, মামি, খালা, ফুফু, মাসি-পিসি তাদের সাথে কল্পনায়, এমনকি বাস্তবেও আদি লিলা খেলায় লিপ্ত হয়। এতে কখনো নারী বা মেয়ের স্বদিচ্ছায়, অনিচ্ছায় ধর্ষণের শিকার হয়। এটি অধর্ম বা পাপ। এর জন্য আপনাকে নরকের আগুনে পুরতে হবে।

Why people love reading Bangla Choti Golpo or Story?

বাংলা চটি গল্প পড়তে কেন বাংলিরা এত ভালবাসে? এই প্রশ্নটা যতটাই সহজ ঠিক ততটাই জটিল। শারীরিক চাহিদা মানব জিবনের আদি ও জৈবিক চাহিদা। তাই মানুষ এই চাহিদা পুরনের জন্য হন্যে হয়ে থাকে। শারীরিক সুখ পুরন করার প্রকার ও ইচ্চা ব্যক্তি বিশেষের উপর নির্ভরশীল।

মানুষ মাত্রই সুখ পীপাশু কিন্তু সবার সুখ লাভ করার পন্থা এক নয়। বাংলা চটি গল্পের ভেতর এক অপার জৈবিক আনন্দ বা সুখ আছে যা প্রায় প্রতিটি মানুষকে আকর্ষণ করে। এই আকর্ষণ যুবক যুবতীদের বিশেষ করে কিশোর কিশোরীদের মধ্যে বেশি হয়ে থাকে। চটি গল্প মনকে কামাক্ত করে শরীরকে মিলনের জন্য ব্যকুল করে তোলে। ভারত বাংলাদেশ অলরেডি পর্ণ সাইট বন্ধ করতে শুরু করছে এবং উত্তেজক ভিডিও দেখা আইনত নিষিদ্ধ করে দিয়েছে।

বর্তমানে যাদের পক্ষে বাস্তবিক মিলন করা সম্ভব নয় বা বাস্তবিক মিলনের উত্তেজক ভিডিও দেখাও সম্ভব নয় তারাই মূলত বিশেষ করে চটি গল্প পড়ে এবং তারাই এর প্রকৃত পাঠক।

চটি গল্প পড়ার প্রধান কারণ নীরবে পড়া যায়। কেউ হঠাৎ চলে আসার ভয় থাকে না, যা ভিডিও দেখার সময় থাকে। পছন্দের মানুষ বা প্রেমিক/প্রেমিকাকে কল্পনা করে নিজের মতো আনন্দ উপভোগ করা। এটাই হচ্ছে চটি পাঠের অন্যান্যতম কারণ।

History of Choti Golpo

ভারতবর্ষের অতীত ইতিহাস ঘাটলে দেখতে পাবেন যে ভারতীয় উপমহাদেশে আদিরসাত্মক রচনা যীশু খ্রিস্টের জন্মের বহু বছর (২০০-৪০০) পূর্বে থেকেই হয়ে আসছে। প্রাচীন কালে আদিরসাত্মক রচনা লেখা হত মানুষকে সঠিক পথে পরিচালিত করার জন্য।

ভারতীয় প্রাচীন সভ্যতার বহু শিল্পকর্মেও ছিল আদিরসের বহিঃপ্রকাশ। বহু প্রাচীন শিল্পকলায় দেখা যায় নগ্ন নারী পুরুষ মূর্তি বা মিলনের দৃশ্য।

আদি কাল থেকেই চলে আসছে এই ধারা। বিভিন্ন সময় সাপেক্ষে ও বিভিন্ন পরিবেশ পরিস্থিতিতে আদিরসাত্মক শিল্পকলা পরিবর্তিত হয়ে ধিরে ধিরে আধুনিক যুগে চটি গল্প ও মিলনের উত্তেজক ভিডিও হিসেবে বহিঃ প্রকাশ হয়েছে।

Readers of Bengali choti story

বাংলা চটি গল্পের পাঠক পুরো পৃথিবীতেই  ছড়িয়ে আছে। বাংলাদেশ পশ্চিমবঙ্গ/ভারত এ বাঙ্গালির সংখ্যা বেশি। তাই এইখানে এর পাঠক সংখ্যা অনেক বেশি। এরপর সৌদি আরব, দুবাই, আমেরিকা, ইংল্যান্ড, কানাডা এবং কমবেশি অন্যান্য দেশেও যেখানে বাঙালি প্রবাসী আছে তারাই বাংলা চটির পাঠক।

গুগলের একটি  তথ্যের সন্ধান থেকে জানা গেছে যে, চটি গল্পের পঠকের চেয়ে পাঠিকার সংখ্যা বেশি। 

২৫-৩২ বছরের পাঠক পাঠিকা বয়সের হিসেবে সব চাইতে বেশি। এর পর ১৩-২৪ বছরের এবং এর পর ৪৫-৬০ বছরের পাঠক পাঠিকা বেশি চটি পড়ে।

চটি গল্পের বেশিরভাগ পাঠক রাত নটা থেকে দুটা পর্যন্ত চটি পড়ে। আবার ভোর চারটা থেকে সাতটা পর্যন্ত। শীত আর বর্ষায় পাঠক বহুগুণ বাড়ে।

ঠাণ্ডায় লেপ মুড়ি দিয়ে প্রিয়তম বা প্রিয়তমার কল্পনায় চটি গল্প পড়তে মোটেও মন্দ লাগার কথা নয় 😁😀😊

ভারতে উত্তেজক ভিডিও বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়ায় ভারতেও প্রচুর পরিমানে চটি গল্পের পাঠক বেড়েছে। আগামী দিনে বাংলাদেশকে হাসতে হাসতে ছাড়িয়ে যাবে ভারত।

Future of Bangla Choti Golpo

চটি গল্পের প্রতি মানুষের আগ্রহ কমছে না। বাংলা চটি গল্পের চাহিদা দিন দিন আরও বাড়বে। এখন সবার হাতে হাতে মোবাইল ফোন। স্মার্ট ফোন এর কারনে এখন ইন্টারনেট সবার হাতের মুঠোয় আসার পর থেকে চটি গল্পের কদর বেড়েছে।

যত দিন যাবে চটি গল্পের সহজ লভ্যতা বেশি হবে, এতে এর পাঠক সংখ্যাও বাড়বে। এমনও হতে পারে, এই চটি গল্পের লেখার মানকে বাড়িয়ে, চটি গল্পকে সাহিত্যের অঙ্গ হিসেবে স্থান দিতে পারে। এতে হয়তো আধুনিক ভাবে মানুষ আদিম যুগে ফিরে যাবে।

আপনি পছন্দ করতে পারেন বাংলা গল্প ও ভিডিও লিস্টঃ

পতিতা

মায়াকথন

অনুগল্প

গল্প ও কাহিনী

বাংলা ডাবিং মুভি

বাংলা মুভি

মনের জানালা

অনলাইন রেডিও

পাঠক আপনারা যারা Bangla choti golpo পড়েন তারা যদি একটু সচেতন হোন তাহলে অনায়াসেই আমাদের আগামী প্রজন্মের ভবিষ্যত সুন্দর করতে পারবেন। ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে আমাদের যে দায় দায়িত্ব আছে এটাও তার একটা বড় অঙ্গ। পিতা মাতার সম্পর্ক নিয়ে আজেবাজে লেখা চললে আগামী প্রজন্ম কী শিখবে বুঝতেই পারছেন? আপনার মানসিকতা আপনার পরিচয়, আপনার পরিবারের ভবিষ্যৎ। যেহেতু আমরা সমাজের অংশ তাই আমাদের কর্তব্য সমাজের ভেতরে ঘুন ধরতে না দেওয়া। আমরাই পারব আগামীকে সুন্দর করতে।

মা বাবা ভাই বোনকে নিয়ে লেখা মাসি মামা পিসিকে নিয়ে লেখা চটি গল্প বা যেকোনও পবিত্র সম্পর্ক নিয়ে লেখা choti golpo কিছুতেই পড়ব না। এই শপথ আমাদের নিতে হবে।  

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker

Refresh Page